শিশুকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে গণপিটুনি দিলো জনগন

নরসিংদী শহরে ৫ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে এক ব্যক্তিকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে দিয়েছেন স্থানীয়রা। আজ মঙ্গলবার দুপুরে শহরের একটি ভাঙ্গারির গোডাউনে এ ঘটনা ঘটে। ওই শিশুকে নরসিংদী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এখন সুস্হ আছে একটু।

এই ঘটনায় আটক ব্যক্তির নাম লুৎফর রহমান (৪৫)। তাঁর বাড়ি জয়পুরহাটে। তিনি পৌর শহরের একটি বাড়িতে ভাড়া থেকে ঝুট মালামালের ব্যবসা করতেন।

 

 

 

পুলিশ ও ওই শিশুর পরিবারের লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায় যে, সকালে ওই শিশু চকলেট কেনার জন্য বাড়ির কাছের একটি দোকানে যাওয়ার সময় নিখোঁজ হয় যায় ও তাকে খুজে পাওয়া যায় না। পরে শিশুটির মা কয়েকজনকে নিয়ে মেয়েকে খুঁজতে বের হলে সড়কের পাশের একটি ভাঙ্গারির গোডাউনে চিৎকার শুনতে পান ও তারা দৈারে সেখানে চলে যায়। ওই সময় সেখানে গেলে পাহারায় থাকা রাকিব, রনি ও রোকন নামের স্থানীয় তিন বখাটে যুবক তাদের ওপর হামলা চালায়। একপর্যায়ে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। পরে ওই গোডাউনের ভেতর থেকে লুৎফর রহমানকে আটক ও শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়। উত্তেজিত জনতা লুৎফর রহমানকে গণপিটুনি দিয়ে নরসিংদী মডেল থানা-পুলিশের হাতে তুলে দেয়।

নরসিংদী মডেল থানার উপপরিদর্শক আল আমিন হাওলাদার জানান, অভিযুক্ত লুৎফর রহমানকে পিটুনি দিয়ে আমাদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় ৪ জনকে আসামি করে ওই শিশুর মা বাদী হয়ে মামলা করতে এসেছেন। আসামি দের ধরার জন্য চেষ্টা চলছে।

(Visited 50 times, 1 visits today)

Author: Staf ReporterH

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *